al
ছবি: দৈনিক সিলেট

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক এমপি আলহাজ্ব শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেছেন, বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মূল উদ্দেশ্য ছিল নতুন রাষ্ট্র বাংলাদেশকে ভ-ুল করে দেয়া, তার আদর্শ থেকে বিচ্যুত করা আর জাতির পিতার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রগতিকে থামিয়ে দেয়া। তাই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা সপরিবারে জাতির পিতা হত্যার প্রতিশোধ নিয়েছেন বাংলাদেশের যুগান্তকারী উন্নয়ন, বাঙালি জাতির ভাগ্য পরিবর্তন এবং বাংলাদেশকে বিশ্বে নেতৃত্বের পর্যায়ে প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়ে। তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার ৩৫ বছরের অপেক্ষার মাধ্যমে, বন্দুকের নলকে উপেক্ষা করে, লোভ-লালসা বিসর্জন দিয়ে, জীবনের ওপর হুমকি বলেন, আক্রমণ বলেন, সেগুলো উপেক্ষা করে জাতির পিতার খুনিদের বিচার করে বাঙালি জাতিকে কলঙ্ক মুক্ত করেছেন।

শফিকুর রহমান চৌধুরী ১৭ আগস্ট বৃহস্পতিবার রাতে চন্ডিপুলস্থ উপহার কমিউনিটি সেন্টারে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব সাইফুল আলম এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীম আহমদ ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদরুল ইসলামের যৌথ পরিচালনায় সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট নাসির উদ্দিন। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট-৩ আসনের এমপি হাবিবুর রহমান হাবিব, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির উদ্দিন আহমদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হাজী রইছ আলী, উপ-প্রচার সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য মতিউর রহমান মতি, জেলা সদস্য এডভোকেট বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, শহিদুর রহমান শাহীন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি আব্দুস সালাম, রাজ্জাক হোসেন, আজির উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক আব্দুল আহাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক তোয়াজিদুল হক তুহিন চেয়ারম্যান, নেছার আলী, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আতিকুর রহমান আতিক, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক জালাল উদ্দিন, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ইসমাইল আলী বাচ্চু, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মিসাবাহ উদ্দিন তালুকদার, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক পংকি মিয়া, আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকে আলী আহমদ, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক অরুন দেবনাথ সাগর, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক কামরুল ইসলাম রাসেল, সহ দপ্তর সম্পাদক ছদরুল ইসলাম, সহ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মাহমুদুল হাসান বাবলু, সদস্য ফজলুল করিম হেলাল, খিজির খান, জামাল উদ্দিন, ফুরুক মিয়া, মিছবাহ উদ্দিন, নজরুল ইসলাম, নূরুজ্জামান তালুকদার, কালাম হোসেন, সেলিম আহমদ, আমিরুল ইসলাম ওয়েছ, আব্দুল আহাদ ইসলাম, আব্দুস সালাম সোহেল, আতিকুল হক শিপন, ছালেহ আহমদ শাহিন, আক্তার হোসেন, জেলা আওয়ামলীগের সাবেক সদস্য আলহাজ্ব মইনুল ইসলাম, জেলা কৃষক লীগের যুগ্ম সম্পাদক জায়েদ আলী, উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্বাছ আলী, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বেদেনা বেগম, সাধারণ সম্পাদক হালিমা বেগম, দাউদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আতিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আতিকুল হক চেয়ারম্যান, তেতলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম বাচ্চু, মোল্লারগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মুমিন হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জবরুল ইসলাম জগলু, মোগলাবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সানর মিয়া, কামালবাজার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার আলী, সাধারণ সম্পাদক আবুল হোসেন, সিলাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আহবায়ক আব্দুল হাই আতিক মাষ্টার, যুগ্ম আহবায়ক আবু সাঈদ জুবেরী ছাদ, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আশিক আলী, মুজিবুর রহমান, বদরুল ইসলাম তুহিন, মনসুর আহমদ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি নিজাম উদ্দিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাঈদ আহমদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক এম. জাবেদ আহমদ, ছাত্রলীগ নেতা সুরমান আহমদ, নিজাম আহমদ প্রমুখ।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে শহীদদের রূহের মাগফেরাত ও প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ূ-সুস্বাস্থ্য কামনা করে বিশেষ মোনাজাত পরিচালনা করেন এমপি হাবিবুর রহমান হাবিব।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন

ডিএস/এমসি

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।