ছবি: ইনক্লাব

আজ মঙ্গলবার (৭ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টায় মোংলা বন্দরের ৭ নম্বর জেটিতে বাংলাদেশের পতাকাবাহী জাহাজ এমভি অপরাজিতায় রুপপুরে নির্মানাধীণ পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য আরও ১২০০ মেট্রিকটন মেশিনারি পণ্য এসেছে। তবে এবারও রাশিয়া থেকে আসা এই মেশিনারি পণ্য ভারতের হলদিয়া বন্দর হয়ে ট্রানজিট হয়ে এসেছে।
জাহাজটির স্থানীয় শিপিং এজেন্ট আল সাফা শিপিং লাইসেন্সের পরিচালক এইচ এম দুলাল বলেন, রাশিয়া থেকে আসা ৫২৫ প্যাকেজের এক হাজার ২০০ মেট্রিকটন মেশিনারি পন্য আসে। জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে রাশিয়া থেকে এই পণ্য জাহাজে লোড হয়। পরে জ্বালানি তেল সংগ্রহ করতে জাহাজটি ভারতের হলদিয়া বন্দর থেকে ট্রানজিট হয়ে আসে। মোংলা বন্দরে আসা এই পণ্য এখন খালাস চলছে। দুদিনের মধ্যে পুরোপুরি খালাস শেষে সড়ক পথে ঈশ্বরদিতে নির্মানাধীণ রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।
২৩ ফেব্রুয়ারি বিদ্যুৎকেন্দ্রের পণ্য নিয়ে বাংলাদেশ পতাকাবাহী অপরাজিতা জাহাজে ৯৮৯ প্যাকেজের এক হাজার ৬৯০ মেট্রিকটন এবং তার আগে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি এক হাজার ৪৮ মেট্রিকটন পণ্য নিয়ে মোংলায় নোঙ্গর করে আরেক বাংলাদেশি জাহাজ ‘এমভি সেজুতি’। সেই জাহাজের পণ্য ইতোমধ্যে খালাস শেষে রুপপুরে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।
সংশ্লিষ্ট একটি সুত্র জানায়, সাতটি জাহাজ কোম্পানির ৬৯টি জাহাজে রাশিয়ার পণ্য পরিবহনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা জারি করে। ফলে রাশিয়া থেকে রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য আমদানিকৃত পণ্য খালাস হয় ভারতে। এরপর সেখান থেকে এসব পণ্য আনা হয় মোংলা বন্দরে।


সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।