image
ছবি: ঢাকা টাইম

উত্তর আমেরিকার দেশ মেক্সিকোতে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় কমপক্ষে ২৭ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ১৩ জন নারী। এছাড়া এই ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ১৭ জন। পাহাড়ি রাস্তায় নিয়ন্ত্রণ হারিযে খাদে পড়ল যাত্রীবাহী বাস। এই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ২৭ জনের। জখম হয়েছেন কমপক্ষে ১৭ জন। মেক্সিকোর ওক্সাকা রাজ্যে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। দ্রুত শুরু হয় উদ্ধার কাজ। ৬ যাত্রীকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গিয়েছে। নিহত এবং আহতদের প্রতি সমবদেনা জানিয়েছেন ওক্সাকার গভর্নর জেনারেল।

পুলিশ জানিয়েছে, দক্ষিণাঞ্চলীয় ওক্সাকা রাজ্যে একটি পাহাড়ি রাস্তা থেকে ছিটকে বাসটি খাদে পড়ে যায়। ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া ফুটেজে দেখা গেছে একটি পাহাড়ের গাড়ির ধ্বংসাবশেষ পড়ে আছে। সেখানে কাজ করছেন উদ্ধারকারীরা। খবর এএফপির।

মেক্সিকো প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাতে দেশটির রাজধানী মেক্সিকো সিটি থেকে বাসটি রওনা দেয় সান্তিয়াগো দে ইয়োসোন্দুয়াপের উদ্দেশে। মাঝপথে ম্যাগদালেনা পেনাসকো শহরের পাহাড়ির রাস্তায় তীব্র গতিতে ছুটছিল যাত্রীবোঝাই বাসটি, সেই সময় নিয়ন্ত্রণ হারান চালক। তখনই সেটি ৮০ ফুট গভীর গিরিখাতে পড়ে যায়। তাতেই মৃত্যু হয়েছে ২৭ জনের।

ওক্সাকার স্টেট প্রসিকিউটর বেরনান্দো রোদ্রিগেজ আলামিলা বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, প্রাথমিকভাবে ২৭ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। এছাড়া দুর্ঘটনায় আরও ১৭ জন আহত হয়েছে। আহতদের চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

বেসামরিক সুরক্ষা সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, আহতদের মধ্যে অন্তত ছয়জন অচেতন হয়ে পড়েন। গুরুতর অবস্থায় তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, স্থানীয় পরিবহন সংস্থা পরিচালিত ওই বাসটি মঙ্গলবার রাতে রাজধানী মেক্সিকো সিটি থেকে যাত্রা করেছিল এবং সান্তিয়াগো ডি ইয়োসোন্ডুয়া শহরের দিকে যাচ্ছিল। এক সংবাদ সম্মেলনে রাষ্ট্রীয় কর্মকর্তা জেসুস রোমেরো বলেন, গাড়ির চালক সম্ভবত নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন এবং দুর্ভাগ্যবশত এটি ২৫ মিটার (৮০ ফুট) গভীর খাদে পড়ে যায়।

আহত যাত্রীদের স্থানীয় হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। অপরদিকে জরুরি পরিষেবা কর্মীরা মৃতদেহগুলো উদ্ধার করেছেন বলে জানা যায়।

ওসাকা রাজ্যের গভর্নর সালোমোন জারা সামাজিক মাধ্যমের এক পোস্টে বলেন, মাগদালেনা পেনাসকো শহরের দুর্ঘটনায় আমরা গভীরভাবে শোকাহত। তিনি নিহতদের পরিবারের প্রতি শোক প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, মেক্সিকোতে উচ্চ গতি, দুর্বল যানবাহন, চালকের কম বিশ্রাম এবং অব্যবস্থাপনার কারণেই প্রায়ই এ ধরনের দুর্ঘটনা দেখা যায়। এর আগে চলতি বছরের এপ্রিলে পশ্চিম মেক্সিকোতে একটি বাস পাহাড়ি রাস্তা থেকে ছিটকে পড়ার পর ১৮ জন মারা গিয়েছিলেন। ২০২১ সালের ডিসেম্বরে চিয়াপাস প্রদেশে প্রায় ১৬৬ জনকে বহনকারী একটি ট্রাক দুর্ঘটনার মুখে পড়ার পর ৫৪ জন নিহত এবং আরও কয়েক ডজন মানুষ আহত হয়। এছাড়া চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে মধ্য মেক্সিকান প্রদেশ পুয়েবলাতে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৭ জন নিহত হন। নিহতদের সবাই ছিলেন অভিবাসী।

(ঢাকাটাইমস/০৬ জুলাই/আরজেড)


সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।