ছবি: নয়া দিগন্ত


জয় দিয়েই নেতৃত্বের অভিষেক স্মরণীয় করে রাখলেন যশপ্রীত বুমরা। তার নেতৃত্বে সিরিজে শুভসূচনা করেছে ভারত। বৃষ্টি আইনে আয়ারল্যান্ডকে হারিয়েছে ২ রানে।

শুক্রবার (১৮ আগস্ট) আয়ারল্যান্ডের ডাবলিনে স্বাগতিকদের ১৪০ রানের লক্ষ্য তাড়া করে ৬.৫ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৪৭ রান তুলে সফরকারীরা। তবে বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে এতেই জয় নিশ্চিত হয় ভারতের।

এই ম্যাচ দিয়ে দীর্ঘদিন পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছেন বুমরাহ। ফেরার ম্যাচেই পেয়েছেন অধিনায়কত্বও। কিছুটা বাড়তি চাপ থাকলেও তা উড়িয়ে দিয়েছেন বল হাতে। ৪ ওভারে ২৪ রান দিয়ে ম্যাচে শিকার করেন ২ উইকেট। জোড়া উইকেট পেয়েছেন অভিষিক্ত প্রসিধ কৃষ্ণা ও রবি বিষ্ণুইও।

তাদের এমন আঁটসাঁট বোলিংয়ে ধ্বস নামে আয়ারল্যান্ডের ইনিংসে। শুরু থেকেই তাদের চেপে ধরে সফরকারীরা। দলীয় ৪ রানের মধ্যে ২ উইকেট আর ৩১ রানেই আইরিশদের ৫ উইকেট তুলে নেয় ভারত। ষষ্ঠ উইকেটও হারায় ১১তম ওভারে এসে মাত্র ৫৯ রানে।

ব্যারি ম্যাকার্থির অপরাজিত অর্ধশতকে ভর করে ধ্বংসস্তূপ থেকে উঠে দাঁড়িয়ে মান বাঁচানো সংগ্রহ পায় আয়ারল্যান্ড। কার্টিস ক্যাম্ফারের সাথে তার ৫৭ রানের জুটিই মোটামুটি একটা ভিত দাঁড় করায়। ক্যাম্ফার আউট হন ৩৩ বলে ৩৯ রান করে।

ম্যাকার্থি অপরাজিত থাকেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজের প্রথম অর্ধশতক তুলে। খেলেন ৩৩ বলে ৫১ রানের ইনিংস। এছাড়া পল স্টার্লিং ১১ বলে ১১ ও সাত নম্বরে নামা মার্ক অ্যাডায়ারের ১৬ বলে ১৬ কেবল দুই অঙ্ক স্পর্শ করেছে। ৭ উইকেটে ১৩৯ রান তুলে থামে তাদের ইনিংস।

হাতের মুঠোয় লক্ষ্য পেয়ে বেশ ভালোই শুরু পায় ভারত। উদ্বোধনী জুটিতেই ৪৬ রান যোগ করেন যশস্বী জায়সাওয়াল ও রুতুরাজ গায়কোয়াড়। জায়সাওয়াল ২৩ বলে ২৪ রান করে আউট হয়ে ফেরেন ক্রেইগ ইয়ংয়ের বলে। পরের বলেই গোল্ডেন ডাক মেরে ফেরান তিলক ভার্মাকেও।

এরপর স্যামসন নেমে ১ বলে ১ রান করতেই শুরু হয় বৃষ্টি। এই বৃষ্টি আর থামেনি। ফলে বৃষ্টি আইনে ভারতকে জয়ী ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। এই সময় ১৬ বলে ১৯ রান করে অপরাজিত ছিলেন রুতুরাজ।


সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।