image
ছবি: ঢাকা টাইম

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কৃষিবিদ আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, বিএনপি নেতাদের কান্না হল মায়াকান্না ও অপপ্রচার। এসব করে তারা দেশের জনগণকে বিভ্রান্ত করতে চায়। এরা কখনোই দেশের ভালো চায়না। এরা বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে চায়। এরা চায় অবৈধ পন্থায় ক্ষমতায় গিয়ে দেশে খুনের রাজত্ব কায়েম করতে। এরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করে না।

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত সব সময় দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার চেষ্টায় লিপ্ত থাকে। তাদের নেতা তারেক রহমান মুচলেকা দিয়ে লন্ডন গিয়ে এখন হুমকি দেয় ও অপপ্রচার করে। এরা সুযোগ পেলেই বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার উপর অতীতের মত আঘাত করবে।

রবিবার বিকালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সহ পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট নিহত সকল শহীদ স্মরণে সভায় এসব কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ছাত্রলীগ, শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা কোন ভাল উদ্যোগ নিলেও বিএনপি নেতারা এর বিরোধিতা করে। তাদের নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রতিদিন মিথ্যাচার করে। তারা বলে আগামী দ্বাদশ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে তাদের নাকি কচুকাটা করা হবে। গত ১৪ বছরেও তাদেরকে কেউই কিছু করেনি। আমরা জাতির পিতার আদর্শের সৈনিক। জাতির পিতা আমাদেরকে হত্যার রাজনীতি শেখায়নি। এসব কথা বলে তারা দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করছে।

নাছিম বলেন, বিএনপির জামায়াত বাংলাদেশের স্বপ্নের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছে। এরা বাংলাদেশকে মেনে নিতে পারেনি। এরা কখনো চায় না বাংলাদেশ উন্নত জাতি হিসেবে গড়ে উঠুক। বঙ্গবন্ধু বিশ্ববাসীর কাছে আমাদেরকে সম্মানের জায়গায় পৌছাতে চেয়েছেন। তিনি তার জীবনে লড়াই সংগ্রাম করেছেন বাঙালির অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে। তার একমাত্র লক্ষ্য ছিল শোষণমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তোলা। তিনি তার যৌবনের শ্রেষ্ঠ সময় গুলো কারাগারে কাটিয়েছেন। তিনি তার জীবন উৎসর্গ করেছেন দেশের মানুষের জন্য।

নাছিম বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা দীর্ঘ ২১ বছর লড়াই সংগ্রাম করেছেন অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য। তিনি আলোর মশাল হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে এসেছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হারানো গৌরবকে উদ্ধার করেছেন। তিনি বিশ্ববাসীর কাছে বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছেন। বিশ্ব এখন বাংলাদেশকে সম্মান করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদেরকে বিশ্ব দরবারে সম্মানিত করেছেন। উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে তিনি হয়েছেন অনন্য ও অসাধারণ। আমরা পেয়েছি আলোর দিশারী।

ছাত্রলীগকে উদ্দেশ্য করে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ একটি আদর্শ সংগঠন। আদর্শিক সন্তানেরাই এ সংগঠন করে। যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মুক্তিযুদ্ধকে মেনে নিতে পারেনা তারা ছাত্রলীগকে কটাক্ষ করে। তোমাদের মনে রাখতে হবে কাজ করলে তার সমালোচনা হয়। ছাত্রলীগকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ধারণ করে সামনে এগিয়ে যেতে হবে এবং কোন অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়া যাবে না।যেখানে অন্যায় দেখবে সেখানে ছাত্রলীগ তা প্রতিরোধ করবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নজরুল ইসলাম বাবু , সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আব্দুর রহিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আল-নাহিয়ান খান জয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি মাজহারুল কবির শয়ন, সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত, শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সোহানুর রহমান সোহান।

(ঢাকাটাইমস/২০আগস্ট/জেএ/কেএম)


সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।