ছবি: ভরের কাগজ

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন স্থানে পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে উত্তেজনার মধ্যেই নতুন করে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) নেতা শুভেন্দু অধিকারী স্লোগান তুলেছেন- ‘চলো কালীঘাট, ইটগুলো খুলি’। বিজেপির এই নেতার দাবি, পশ্চিমবঙ্গে ‘জনগণের অভ্যুত্থান’ দরকার। রাজ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনতে দুটি পথ খোলা আছে। একটি হলো ‘জনগণের অভ্যুত্থান’। অপরটি (ভারতীয় সংবিধানের) ৩৫৬ কিংবা ৩৫৫ ধারা জারি করে নির্বাচন।

আরো পড়ুন: পশ্চিমবঙ্গে পঞ্চায়েত ভোট, নিহত ৯

নন্দীগ্রাম বিধানসভা এলাকার ভোটার শুভেন্দু নন্দনায়ক বাড়ের ৭৭ নম্বর বুথে ভোটে দেন। এরপরই তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে এই হুঁশিয়ারি দেন তিনি। যা নিয়ে পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়েছে রাজ্যটির ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস সরকার। দলটির সাধারণ সম্পাদক বা মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, ‘(ভোটে) হার নিশ্চিত বুঝতে পেরে গিয়েই এই সব বলছে। এই রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি করার আগে মণিপুর নিয়ে দিল্লির দাদাদের সঙ্গে কথা বলা উচিত শুভেন্দুর।’ খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

রাজ্যে দীর্ঘ দিন ধরে কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়ে আসছেন শুভেন্দু অধিকারী। এখনো পর্যন্ত তার সেই দাবিতে কোনো পদক্ষেপই নেয়নি ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। শনিবার শুভেন্দুর গলায় দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের প্রতি বার্তাও শোনা যায়। তিনি বলেন, ‘দিল্লির কে কী ভাববে, অন্য কে কী বলবে আমার জানার দরকার নেই। আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত থেকে বাংলার পরিত্রাণের জন্য মন্ত্রিত্ব ছেড়ে এখানে এসেছি।’

ডি- এইচএ


সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।